মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C

উপজেলার বিভিন্ন সরকারী অফিস

            উপজেলা শিক্ষা অফিস

 

·        বিনামূল্যে বই বিতরণ

·        এসএমসি ও পিটিএ গঠন/পূনর্গঠন

·        উপবৃত্তির তালিকা প্রনয়ন

·        বিএড ও এমএড-সহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠানে প্রশিক্ষণের অনুমতি প্রদান

·        টাইমস্কেল এর আবেদনের নিষ্পত্তি

·        পদোন্নতি প্রদান

·        দক্ষতাসীমা-র আবেদন নিষ্পত্তি

·        এলপিআর/লাম্পগ্রান্ট সংক্রান্ত আবেদন নিষ্পত্তি

·        পেনশন কেস আবেদন নিষ্পত্তি

·        জিপিএফ থেকে ঋণ গ্রহন সংক্রান্ত আবেদন নিষ্পত্তি

·        জিপিএফ থেকে চূড়ান্ত উত্তোলন সংক্রান্ত আবেদন নিষ্পত্তি

·        গৃহনির্মান ঋণ ও অনৃরূপ আবেদন নিষ্পত্তি

·        পাসপোর্ট করণের অনুমতিদানের আবেদন নিষ্পত্তি

·        বিদেশ ভ্রমণ/গমন সংক্রান্ত আবেদন নিষ্পত্তি

·        উচ্চতর পরীক্ষায় অংশগ্রহণের অনুমতিদানের আবেদন নিষ্পত্তি

·        নৈমিত্তিক ছুটি ব্যতীত বিভিন্ন প্রকার ছুটি সংক্রান্ত আবেদন নিষ্পত্তি

·        শিক্ষকদের বদলী সংক্রান্ত আবেদন নিষ্পত্তি (উপজেলার মধ্যে)

·        শিক্ষকদের বদলী সংক্রান্ত আবেদন নিষ্পত্তি (উপজেলার বাইরে)

·        বকেয়া বিল-এর আবেদন নিষ্পত্তি

·        বার্ষিক গোপনীয় অনুবেদন/প্রতিবেদন পূরণ

·        তথ্য প্রদান/সরবরাহ

 

কালিগঞ্জ থানা, সাতক্ষীরা।

 

১। কালিগঞ্জ থানা জনগণের সেবা প্রদানকারী একটি প্রতিষ্ঠান

২। জাতি,ধর্ম,বর্ণ ও রাজনৈতিক/ সামাজিক/অর্থনৈতিক শ্রেণী নির্বিশেষে সকল নাগরিকের সমান আইনগত অধিকার প্রদান

৩। থানায় আগত সাহায্য প্রার্থীদের আগে আসা ব্যক্তিকে আগে সেবা প্রদান করা

৪। থানায় সাহায্য প্রার্থী সকল ব্যক্তিকে থানা পুলিশ সম্মান প্রদর্শন এবং সম্মান সুচক সম্বোধন করা

৫। থানায় জিডি করতে আসা ব্যক্তির আবেদনকৃত বিষয়ে ডিউটি অফিসার সর্বত্নক সহযোগিতা প্রদান  করা এবং আদনের ২য় কপিতে জিডি নম্বর,তারিখ এবং সংশিস্নষ্ট অফিসারের স্বাক্ষর ও সীলমোহর সহ তা আবেদনকারীকে প্রদান করা এবং বর্ণিত জিডি সংক্রান্ত বিষয়ে যথাশীঘ্র সম্ভব ব্যবস্থা গ্রহণ এবং গৃহীত ব্যবস্থা পুনরায় আবেদনকারীকে অবহিত করা।

৬। থানায় মামলা করতে আসা ব্যক্তির মৌখিক/লিখিত বক্তব্য অফিসার ইনচার্জ কর্তৃক এজাহার ভুক্ত করা এবং আগত ব্যক্তিকে মামলার নম্বর, তারিখও ধারা  সহ তদন্তকারী অফিসারের নাম ও পদবী অবহিত করবে। তদন্তকারী অফিসার এজাহারকারীর সাথে নিয়মিত যোগাযোগ করা করে তাকে তদন্তের অগ্রগতি সম্পর্কে অবহিত করবে এবং তদন্ত সমাপ্ত হলে তাকে ফলাফল লিখিত ভাবে  জানিয়ে দিবে।

৭। আহত ভিকটিমকে থানা হতে সার্বিক সহযোগিতা প্রদান করা এবং এ বিষয়ে থানা সকল মেডিকেল সার্টিফিকেট সংগ্রহ করা।

৮। শিশু/ কিশোর অপরাধী সংক্রামত্ম বিষয়ে শিশু আইন, ১৯৭৪ এর বিধান অনুসরণ করা এবং তারা যাতে কোন ভাবেই বয়স্ক অপরাধীর সংস্পর্শ না আসতে পারে তা নিশ্চিত করা। এ জন্য দেশের সকল থানায় পর্যায়ক্রমে কিশোর হাজত খানার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

৯। মহিলা আসামী/ভিকটিমকে যথাসম্ভব মহিলা পুলিশের মাধ্যমে সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করা।

১০। পাসপোর্ট ভেরিফিকেশন/আগ্নেয়াস্ত্রের লাইসেন্স ইত্যাদি বিষয়ে  সকল অনুসন্ধান প্রাপ্তির ০৩ (তিন) দিনের মধ্যে তদন্ত সম্পন্ন করে থানা হতে সংশিস্নষ্ট ইউনিটে প্রতিবেদন প্রেরণ করা।

১১। থানা পুলিশ সদস্যগণ কমিউনিটির সাথে নিরবছিন্ন ভাবে যোগাযোগ রক্ষা করা।

১২। অপরাধ দমন মূলক /জনসংযোগমূলক সভার মাধ্যমে সামাজিক সমস্যা এবং আইনগত সমাধান করা

১৩। বিদেশে চাকুরী/ উচ্চ শিক্ষার জন্য গমনেচ্ছু প্রার্থীদের পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট প্রদান

১৪। ব্যাংক হইতে কোন প্রতিষ্ঠান অধিক পরিমান টাকা উত্তোলন করলে উক্ত টাকা নিরাপদে নেওয়ার জন্য চাহিদা অনুযায়ী পুলিশ এস্কটের ব্যবস্থা করা

১৫। যানবহন নিয়ন্ত্রনে ট্রাফিক সুবিধা প্রদান করা।

 

 

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

 

কালিগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি বাংলাদেশের দক্ষিন পশ্চিমের জেলা সাতক্ষীরা শহর হইতে প্রায় ৩৬ কি.মি. দূরে কালিগঞ্জ স্থানীয় বাস টার্মিনাল হইতে প্রায় ১ কি.মি দূরে কাকশিয়ালী নদীর তীরে অবস্থিত। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি ১৯৬৫ সালে রুরাল হেলথ সেন্টার নামে তদানিন্তন পাকিস্তান সরকারের সময় প্রতিষ্ঠা হয়। পরবর্তীতে বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পরে এটি বাংলাদেশ সরকারের অর্থায়নে পরিচালিত হতে থাকে। বর্তমানে হাসপাতালটিকে ৩১ শয্যা হইতে ৫০ শয্যায় রূপান্তরিত হয়েছে। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান মন্ত্রী জনাব অধ্যাপক ডা: আ ফ ম রুহুল হক, এম.পি. এটি উদ্বোধন করেন। হাসপাতালে ১০ জন চিকিৎসক সহ শতাধিক কর্মচারী কালিগঞ্জ উপজেলা সহ এর আশেপাশের মানুষদের চিকিৎসা সংক্রান্ত বিভিন্ন সেবা দিয়ে যাচ্ছেন।